1. [email protected] : দেশ রিপোর্ট : দেশ রিপোর্ট
  2. [email protected] : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  3. [email protected] : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন : Renex অনলাইন
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৩:২০ পূর্বাহ্ন

‘বিয়েবাড়িতে’ আগুন! মন্ত্রী-মেয়রের উপস্থিতিতে নেভাল ফায়ার সার্ভিস

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

বিয়েবাড়িতে’ উপস্থিত বর-কনেসহ বেশ কয়েকজন আত্মীয়। এমন সময় সেখানে আগুন লাগল। এরপর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হলে তারা এসে দ্রুত দক্ষতার সঙ্গে সেই আগুন নিভিয়ে ফেলে। এমন দৃশ্যই তৈরি করা হয়েছিল জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস ২০২১ উপলক্ষে আয়োজিত মহড়ায়। এতে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

আজ শনিবার বেলা সাড়ে এগারটায় রাজধানীর কড়াইলে ভূমিকম্প ও অগ্নিকাণ্ড সচেতনতা মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

মহড়া শেষে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়নে আমাদেরকে একসাথে কাজ করতে হবে। আমরা বড় বড় অট্টালিকা তৈরি করি, কিন্তু সেগুলোর কমপ্লায়েন্স মেনে চলি না। যারা বড় বড় ভবন তৈরি করছেন তাদের নিজস্ব অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা থাকতে হবে”। মেয়র আরো বলেন, আপনারা ৪০, ৫০, ৬০ তলা বিল্ডিং করবেন কিন্তু নিজস্ব অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা তৈরি করবেন না, এটা হতে পারে না। নিজস্ব অগ্নি নির্বাপন ও ফায়ার ড্রিল এর সার্টিফিকেট না থাকলে ডিএনসিসি থেকে ট্রেড লাইসেন্স দেওয়া হবে না। যারা ভবন তৈরি করবেন তাদেরকেই ভবনের নিরাপত্তা দায়িত্ব নিতে হবে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ফায়ার সেফটি, বিল্ডিং সেফটি, ইলেকট্রিক্যাল সেফটি এগুলো নিজ দায়িত্বে নিশ্চিত করতে হবে সরকারের উপর বসে থাকলে হবে না। ফায়ার ব্রিগেড এর উপর বসে থাকলে হবে না। নিজের দায়িত্ব নিজেকেই নিতে হবে।

মেয়র আরো বলেন, ‘বস্তিবাসীর আবাসিক সমস্যা সমাধানে ডিএনসিসি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সাথে কাজ করতে চায়। গাবতলীতে ডিএনসিসির পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের জন্য আবাসিক ভবনের পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। একইভাবে বস্তবাসীর জন্য বহুতল ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা করা যেতে পারে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বিশ্বে রোল মডেল। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য বর্তমান সরকারের আমলে পর্যাপ্ত যন্ত্রপাতি কেনা হয়েছে। দেশব্যাপী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ওয়াটার এম্বুলেন্স, এয়ার এম্বুলেন্স, অত্যাধুনিক কমিউনিকেশন টেকনোলজিসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি কেনা হবে। এর ফলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের যে দক্ষতা তৈরি হবে তা পৃথিবীর যেকোনো উন্নত শহরের সম পর্যায়ের সাথে তুলনীয় হবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মহসীন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ সাজ্জাদ হোসাইন, ডিএনসিসির ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মফিজুর রহমান, ২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নাছির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার:
আরও পড়ুন...
স্বত্ব © ২০২৩ দৈনিক দেশবানী
ডিজাইন ও উন্নয়নে - রেনেক্স ল্যাব