1. [email protected] : দেশ রিপোর্ট : দেশ রিপোর্ট
  2. [email protected] : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  3. [email protected] : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  4. [email protected] : অনলাইন : Renex অনলাইন
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন

‘খেলা চলছে, বিরাট খেলা চলবে’

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির দুইবারের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর এবার ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করে সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুনভাবে আলোচনায় এসেছেন যুব তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য। এ নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়া টাইমস।

ফেসবুক লাইভে দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেন, জানি না কী হতে চলেছে ভগবান জানে। প্রস্তুত থাকুন, খেলা চলছে, বিরাট খেলা চলবে। প্রধানমন্ত্রীর (নরেন্দ্র মোদির) জন্মদিনে এটা রিটার্ন গিফট। অমিত শাহকে রাজনীতির চাণক্য বলা হয়। কিন্তু, কেমন চাণক্য তিনি, যিনি নিজের দলের ফেসদের দলে রাখতে পারছেন না। বাংলায় ৭৭ এর গন্ডি পার হতে পারলেন না। তার মানে কি এটা, যে এখন রাজনীতির আসল চাণক্য অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়! যিনি শান্তভাবে,কখনও রাস্তায় নেমে, কখনও রাজনীতির ময়দানে নিজেকে প্রমাণিত করছেন।

তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে দেবাংশু বলেন, আগামী ৫ বছর আপনাদের কাজ টিভির সামনে বলে পপকর্ন খাওয়া, মানুষের পাশে থাকা এবং উন্নয়ন দেখা। খেলা তো সবে শুরু।

লাইভের একদম শেষ অংশে দেবাংশু বলেন, দেখুন হয়তো দেখতে পাবেন কিছুদিনের মধ্যেই গুজরাটের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কলকাতায় এসে যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলে। আমি ঠিক জানি না কী হতে চলেছে। প্রস্তুত থাকুন, খেলা চলছে, বিরাট খেলা হবে।

দেবাংশু বলেন, ‘বাংলায় যখন ২ জন সংসদ সদস্য ছিল তখনও বাবুল সুপ্রিয়কে প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছিল। গরুর গাড়ির হেডলাইটের মতো। কিন্তু এবার যখন বাংলা থেকে ১৮টি আসনে বিজেপি জয়ী হল তখন একজনকে পূর্ণমন্ত্রী করা হবে বলে মনে করেছিলেন অনেকে। কিন্তু, তার জায়গায় বাবুল সুপ্রিয়র মতো একজন ব্যক্তিকে মন্ত্রিসভা থেকে সরিয়ে দেওয়া হল।

প্রসঙ্গত, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর বাবুল সুপ্রিয় বলেন, বাংলার মানুষের সেবা করতে চেয়েছি সবসময়। আমি কাজ করতে পছন্দ করি। আমি আশা করছি দল আমাকে যে দায়িত্ব দেবে তা আমি পালন করব। তৃণমূলে যোগ দিয়ে আমি গর্বিত।

https://www.facebook.com/watch/?v=562334978416186

শেয়ার:
আরও পড়ুন...
স্বত্ব © ২০২৩ দৈনিক দেশবানী
ডিজাইন ও উন্নয়নে - রেনেক্স ল্যাব